খাদ্য নিরাপদ রাখার ৫ চাবিকাঠি - পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা, কাঁচা ও রান্না খাদ্য পৃথক রাখা, ৬০ ডিগ্রী সে. এর বেশি তাপমাত্রায় রান্না করা, রান্না করা খাবার ৫ ডিগ্রী সে. এর নীচের তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা এবং নিরাপদ খাদ্যোপকরণ ও পানি ব্যবহার করা। নিরাপদ খাদ্য আইন, ২০১৩ মেনে চলুন - উৎকৃষ্ট পদ্ধতিতে খাদ্য উৎপাদন করুন, উৎকৃষ্ট প্রক্রিয়ায় খাদ্য প্রস্তুত করুন ও নিরাপদ খাদ্য বিক্রয় করুন। জীবন ও স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নিরাপদ খাদ্য - অনিরাপদ খাদ্যকে না বলুন। নিরাপদ খাদ্য আইন, ২০১৩ মেনে চলুন - ভেজাল ও মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্যদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয় করবেন না এবং ছোঁয়াচে ব্যাধিতে আক্তান্ত ব্যক্তি দ্বারা খাদ্যদ্রব্য প্রস্তুত, পরিবেশন বা বিক্রয় করবেন না। নিরাপদ খাদ্য আইন, ২০১৩ মেনে চলুন - মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর রাসায়নিক দ্রব্য যেমন, ক্যালসিয়াম কার্বাইড, ফরমালিন, ডিডিটি ও পিসিবি মিশ্রিত খাদ্যদ্রব্য বা খাদ্যোপকরণ মজুদ, বিপণন বা বিক্রয় করবেন না।

প্রক্রিয়াজাত খাদ্য পণ্য এবং উদ্ভিদ ও উদ্ভিদজাত পণ্যের রপ্তানির ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সনদ প্রদান বিষয়ে সভা

গত ২৫ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জনাব মোহাম্মদ মাহফুজুল হক এর সভাপতিত্বে প্রক্রিয়াজাত খাদ্য পণ্য এবং উদ্ভিদজাত পণ্যের রপ্তানির ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সনদ প্রদান বিষয়ে বিভিন্ন অংশীজনের সাথে সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় কৃষি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, বিসিএসআইআর, বিএসটিআই, রপ্তানি উন্নয়ন বুরে‌্যা, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, মৎস্য অধিদপ্তর, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর, বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন বোর্ড এর প্রতিনিধি এবং কর্তৃপক্ষের সকল সদস্য, সচিব এবং পরিচালকগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় প্রক্রিয়াজাত খাদ্য পণ্য এবং মৎস্য, প্রাণি, উদ্ভিদ ও উদ্ভিদজাত পণ্যের রপ্তানির দায় দায়িত্ব, আইনগত সীমাবদ্ধতা, সনদ প্রদান এবং বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের ভূমিকা নিয়ে আলোচনা হয়। বিশেষ করে সাম্পতিক সময়ে এগ্রোনমি এক্সপোর্ট ইমপোর্ট (প্রা:) কর্তৃক মালয়েশিয়াতে রপ্তানিকৃত ৪০ মে.ট. বাদামের জন্য মালয়েশিয়ায় কাস্টমস কর্তৃপক্ষের চাহিদামত অষভধঃড়ীরহ ষবাবষ পরীক্ষার ফলাফল সম্বলিত স্বাস্থ্য সনদ প্রদানে রপ্তানি পণ্য সনদ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান সমূহের আইনগত সীমাবদ্ধতা নিয়ে আলোচনা হয়।

সভায় বিস্তারিত আলোচনান্তে নি¤œবর্ণিত সিদ্ধান্তসমূহ গৃহীত হয় ঃ (ক) কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, মৎস্য অধিদপ্তর, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর, বিএসটিআই এবং অন্যান্য সংস্থাসমূহ তাদের আওতাধীন বিভিন্ন রপ্তানি পণ্যের সনদের কপি, সনদ প্রদান কার্যক্রম ফ্লোচার্ট আকারে সংশ্লিষ্ট বিধি-বিধানসহ একটি পরিপূর্ণ প্রতিবেদন বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষকে প্রদান করবে; এবং

(খ) কৃষিজাত পণ্য রপ্তানির সাথে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংস্থা যেমন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, রপ্তানি উন্নয়ন বুরে‌্যা, বিএসটিআই, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, মৎস্য অধিদপ্তর, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর, হরটেক্স ফাউন্ডেশন ও আইএফএসবি প্রকল্প এবং বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ এর প্রতিনিধি নিয়ে একটি কমিটি গঠিত হবে। উক্ত কমিটি সংশ্লিষ্ট সংস্থাসমূহের সনদ প্রদান কার্যক্রম পর্যালোচনা করে কৃষিজাত পণ্যের যুগোপযোগী সনদ প্রদানের ক্ষেত্রে উপযুক্ত পদ্ধতি প্রণয়নে কার্যকরী পদ্ধতির ওপর সুপারিশ প্রণয়ন পূর্বক একটি প্রতিবেদন আগামী ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের নিকট দাখিল করবে।

You are here: Home প্রক্রিয়াজাত খাদ্য পণ্য এবং উদ্ভিদ ও উদ্ভিদজাত পণ্যের রপ্তানির ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সনদ প্রদান বিষয়ে সভা
No. of visits: 124737